নিজের জন্মদিনে শুভেচ্ছা ও ভালবাসায় সিক্ত হয়ে সকলের প্রতি রাদওয়ান মুজিবের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ

ঢাকা

ঢাকা, ২২ মে, ২০২৪ (নিখাদ বার্তাকক্ষ): নিজের জন্মদিনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উষ্ণ শুভেচ্ছা ও ভালবাসায় সিক্ত হয়ে সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৌহিত্র রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক।
তার প্রতি অকুন্ঠ শুভেচ্ছা ও ভালবাসার স্বীকৃতিস্বরূপ নিজের ফেসবুকে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে রাদওয়ান মুজিব লিখেছেন, ‘জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানানোয় সকলকে ধন্যবাদ।’
দেশের সর্ববৃহৎ যুব প্ল্যাটফর্ম ‘ইয়াং বাংলা’র মাধ্যমে তরুণদের ক্ষমতায়নের জন্য কাজ করছেন রাদওয়ান মুজিব।
সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) এর একজন ট্রাস্টি, রাদওয়ান দেশের যুব সমাজের ক্ষমতায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন। তার নেওয়া উদ্যোগগুলো দেশের যুব সমাজের ক্ষমতায়নে সবচেয়ে বড় প্রচেষ্টার একটি হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।
দেশের যুব সমাজের সর্ববৃহত প্ল্যাটফর্ম ‘ইয়াং বাংলা’র মতো উদ্যোগের জন্য দেশের সবচেয়ে উজ্জ্বল সুপার অ্যাচিভারদের পরামর্শদাতা হিসাবে খ্যাতি লাভ করা রাদওয়ান একটি সৃজনশীল পদ্ধতিতে ইতিহাসকে যুবকদের কাছাকাছি আনতে কাজ করছেন।
১৯৭৫ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নৃশংস হত্যাকান্ডের পর সামরিক শাসকরা মুজিবের বীরত্বপূর্ণ সংগ্রামকে নিশ্চিহ্ন করে দেয়। যার ভাষণ এখন ইউনেস্কোর স্বীকৃতি লাভ করেছে।
তরুণদের কাছে বঙ্গবন্ধুকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দিতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ রাদওয়ান গ্রাফিক নভেল সিরিজ “মুজিব” তৈরির উদ্যোগ নেন। বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীর উপর ভিত্তি করে রচিত এই ১০ খন্ডের অংশের সিরিজটি শিশু, কিশোর এবং তরুণ, প্রাপ্তবয়স্কদের সমানভাবে বিমোহিত করেছে, যা দেশের ইতিহাসকে আকর্ষণীয় গল্প বলার মাধ্যমে অধিকতর সহজ করে তুলেছে।
লন্ডন স্কুল অফ ইকোনমিকস থেকে গভর্নেন্স অ্যান্ড হিস্ট্রি বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করা রাদওয়ান একই প্রতিষ্ঠান থেকে কম্পেয়ারেটিভ পলিটিকসে স্নাতকোত্তর করেছেন। ১৯৮০ সালের এই দিনে তিনি বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ কন্যা শেখ রেহানা এবং প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ শফিক আহমেদ সিদ্দিকের ঘরে জন্মগ্রহণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.